The Earth !

studio wall

পাহাড় এক আশ্চর্য প্রাকৃতিক অনুষঙ্গ, আমি সমুদ্র-পাড়ের মানুষ, তবুও পাহাড়ের রহস্য আমাকে বরাবরই তাড়িয়ে বেড়িয়েছে। ছোট বেলায় ‘কর্ণফুলী’র পাড়ে দাঁড়িয়ে দেয়াং পাহাড়ের দিকে তাকিয়ে ভাবতাম কি জানি কত কি লুকিয়ে আছে নদীর ওইপাড়ের নিলাভ পাহাড়ে। ছবিআকা শুরুর প্রথম দিকে দেয়াং হয়ে উঠে আমার প্রিয় বিষয়, ২০০০সনে করা আমার প্রথম একক চিত্র প্রদর্শনী জুড়ে ছিল দেয়াং এর প্রকৃতি ও এর সাথে নদীর মিতালী। সময়ের পরিক্রমায় পাহাড়ের টানে ঘুরে বেরিয়েছি পার্বত্যচট্টগ্রাম আঞ্চলের নানান এলাকায়, চট্টগ্রাম শহর, বিশ্ববিদ্যালয়, হাঠহাজারী, খাগড়াছড়ি, রাঙামাটি, বান্দরবান, জেনেছি পাহাড় ও সেখানে বসবাসরত জনগোষ্ঠীকে।
২০০৫ সালে প্রথম নেপাল ভ্রমনের সুযোগ আসে, পাহাড় ছাড়িয়ে পর্বতের দেখা পেলাম তখন, কাঠমান্ডু ভেলি থেকে হিমালয় দেখার মুগ্ধতায় পড়ে আরো দুই বার নেপাল দেখার ডাক এড়াতে পারিনি, গত বছর ৪৫ দিন নেপালের দুর্গম পার্বত্য এলাকা ” সিপাপুখারি” ঘুরে দেখা হয়, জানা হয় সেখানকার জীবন ও জীবিকা। ২০০৭ সালে দক্ষিন কোরিয়ার গুয়াংজু শহরে অবস্থিতি “মুদুংসান” পর্বতের পাদদেশে স্টুডিয়ো পেয়ে যাই ৯০ দিনের জন্যে।
মুদুংসান এর রুক্ষতা এবং ধ্যান মগ্নতা আমার জীবন বোধকে দিয়েছিল এক নতুন নির্দেশনা, ২০০৭ এর পর আমি বার বার গুয়াংজু যেতে হয়েছে অন্য কাজে, কখনো মুদুংসানকে উপেক্ষা করতে পারিনি।
দক্ষিণ কোরিয়াতে আরও অনেক পর্বত আরোহন করার সুযোগ পেয়েছি নানান অবসরে, জাপানের নিঞ্জা পর্বতে এক রাত কাটানোর অভিজ্ঞতা ভূলে যাবার মত নয়, পাহাড় আর পর্বতের স্মৃতি নাড়াচাড়া করে দেখার অবসর এসেছে গত ফেব্রুয়ারি থেকে, জীবনপথে চলতে চলতে খানিক জিরিয়ে নেওয়া যায়, এতে অভিজ্ঞতা গুলি যাচাই বাছাই হয়, এই সব নাড়াচাড়া করতে করতে অনেক দিন অবহেলায় পড়ে থাকা জলরঙ উঠে আসে হাতে, এখানে তারই কিছু বন্ধুদের জন্যে শেয়ার করলাম, আশাকরি অনেকেই উপভোগ করবেন, ধন্যবাদ।


to know more

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.